নীড় পাতা / আইন-আদালত / লবণের গুজব প্রতিরোধে বাজারে নেমেছেন ইউএনও

লবণের গুজব প্রতিরোধে বাজারে নেমেছেন ইউএনও

নিজস্ব প্রতিবেদক, গোদাগাড়ী:  পেঁয়াজের পর এবার ‘লবণ’ নিয়ে গুজব ছড়িয়ে বেশি দামে লবণ বিক্রি করছে এক শ্রেণীর অসাধু ব্যবসায়ী। লবণের কেজি ২’শ টাকা হবে’ এমন গুজব হঠাৎ করেই ছড়িয়ে পড়েছে রাজশাহীর গোদাগাড়ী উপজেলার বিভিন্ন হাটে-বাজারে। মুহুর্তের মধ্যে ২০ টাকা কেজির লবণ ৩০-৪০ টাকা ৩০ টাকা কেজির লবণ  ৫০-৬০ টাকায় বিক্রি শুরু করে ব্যবসায়ীরা।
এদিকে, খবর পাওয়ার পর গুজব প্রতিরোধে মাঠে নেমেছে স্থানীয় প্রশাসন। উপজেলা নির্বাহী অফিসার শিমুল আকতার বিভিন্ন হাটে-বাজারে অভিযান পরিচালনা করছেন এবং সাধারণ মানুষদের সচেতন করছেন।

এলাকাবাসীরা জানায়, গতরাত ১২টা থেকে বিভিন্ন ব্যবসায়ীর কাছে ফোন আসতে থাকে লবন ২শ টাকা কেজি হবে। এমন গুজবে সকাল থেকেই নারী পুরুষ সব বয়সের লোক বস্তা-ব্যাগ ভরে ভরে লবন কিনতে থাকে। মুহুর্তের মধ্যে লবনের দাম বৃদ্ধি পায়। ৩০টাকা কেজি লবনের দাম বেড়ে দাঁড়ায় ৫০ টাকায়। খোঁজ নিয়ে জানা যায়, উপজেলার বিভিন্ন এলাকায় এই গুজব ছড়ানোর সাথে সাথেই হইচই লেগে যায়।  
মহিশালবাড়ী এলাকার করিম জানান, লবনের দাম বৃদ্ধি নিয়ে হঠাৎ করে গুজব ছড়ানো হয়। গুজবে গ্রামের সাধারণ মানুষরা লবন কিনতে বিভিন্ন হাটে-বাজারে ভীড় করে। ১৫/১৬টাকা কেজির খোলা লবন মুহুর্তের মধ্যে ৩৫ থেকে ৫০টাকায় বিক্রি শুরু করে।
এদিকে, খবর পাওয়ার পর উপজেলার ইউএনও শিমুল আকতার, গোদাগাড়ী মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) খাইরুল ইসলাম,বনিক সমিতির সভাপতি শফিকুল ইসলাম, স্থানীয় কাউন্সিলর, সাংবাদিকরা বাজারে ছুটে যান সকলকে সচেতন করতে। বিভিন্ন বাজারে গিয়ে মনিটরিংয়ের পাশাপাশি গুজব প্রতিরোধে সচেতন করা হচ্ছে। এমনকি সকল এলাকাই গুজবে কান না দেওয়ার জন্য সচেতনতামূলক মাইকিং করা হচ্ছে। 

 উপজেলার নির্বাহী অফিসার শিমুল আকতার বলেন, একটি চক্র গুজব ছড়িয়ে বেশি দামে লবন বিক্রি করার পায়তারা করছে। বিষয়টি জানার পর পরই সকলকে সাথে নিয়ে বিভিন্ন বাজারে অভিযান পরিচালনা করা হচ্ছে। তাছাড়া গুজব প্রতিরোধে সকলকে কাজ করার জন্য নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। যারাই এই ধরনের কাজ করছে তাদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

আরও দেখুন

গুরুদাসপুরে ইয়াবাসহ আটক- ১

নিজস্ব প্রতিবেদক:নাটোরের গুরুদাসপুরে ২৮৮০ পিস ইয়াবাসহ সাদ্দাম (২৮) নামের একজনকে আটক করেছে র‌্যাব। আজ ১৭ …

Leave a Reply

Your email address will not be published.