মঙ্গলবার , আগস্ট ৯ ২০২২
নীড় পাতা / আইন-আদালত / বিরামপুরে হাসপাতালে রোগীর মৃত্যু, ডাক্তার আটক

বিরামপুরে হাসপাতালে রোগীর মৃত্যু, ডাক্তার আটক


নিজস্ব প্রতিবেদক, হিলি
দিনাজপুরের বিরামপুর উপজেলার পৌরশহরে আনাসা নামক একটি প্রাইভেট হাসপাতালে অপারেশনের সময় ডাক্তারের অবহেলায় রোগীর মৃত্যুতে এলাকায় উত্তেজনা ছড়িয়ে পড়লে উপজেলা নিবার্হী অফিসার হাসপাতালের কার্যক্রম বন্ধ করে দেন এবং পুলিশ ডাক্তার ফারজানা ইয়াসমিন জলিকে আটক করেছে।

পুলিশ জানায়, উপজেলার বিসকিনি গ্রামের আবু তালেব এর স্ত্রী রেশমা খাতুন বিজলীকে জরায়ুতে সমস্যার কারণে বুধবার সকালে ওই আনাসা হাসপাতাল এন্ড ডায়াগনষ্টিক সেন্টারে ভর্তি করানো হয়। হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ অপারেশন সংক্রান্ত বিষয়ে কোন পরীক্ষা নিরীক্ষা ছাড়াই হঠাৎ করে বিকেলে কথিত ডাক্তার মোছাঃ ফারজানা ইয়াসমিন জলি নিজেই জরায়ু অপারেশন করার কথা বলে রুগীকে অপারেশন থিয়েটরে নিয়ে যায়। সেখানে কথিত ডাক্তার ফারহানা ইয়াসমিন জলি অপারেশন করা কালীন রোগীর মৃত্যু ঘটে।

রোগীর লোকজন কোন কিছু বুঝে উঠার আগেই তড়িঘড়ি করে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ রেশমার লাশ বের করে দেয়। বিষয়টি জানাজানি হলে স্থানীয়রা ক্লিনিক ঘেরাও করে ডাক্তার ও হাসপাতাল কর্তৃপক্ষে বিচারের দাবিতে বিক্ষোভ করতে থাকে।

এ ঘটনার খবর পেয়ে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা তৌহিদুর রহমান ও থানা অফিসার ইনর্চাজ মনিরুজ্জামানসহ ঘটনা স্থলে আসে। সেখানে অন্যান্য ডাক্তার ও নার্সদের না পেয়ে নিবার্হী ম্যাজিস্ট্রেট হাসপাতালটি বন্ধ ঘোষণা করেন।

এদিকে মৃত: রেশমার পরিবারের লোক জন ঘটনা জানতে পেরে ছুটে আসে এবং মরদেহ পুলিশের কাছে হস্তান্তর করে এবং ওই রাতেই রেশমার চাচা বীর মুক্তিযোদ্ধা লিয়াকত আলী বাদী হয়ে ডাক্তার ফারজানা ইয়াসমিন জলি, ডাক্তার খন্দকার মশিহুর রহমান, সামিউন নেছা আদুরী, ও মোরশেদ হোসেনসহ অজ্ঞাত ৩ জনের নামে থানায় মামলা দায়ের করেন। পুলিশ হাসপাতালে কোয়াটার থেকে পুলিশ ডাক্তার ফারজানা ইয়াসমিন জলিকে আটক করেছে।

আরও দেখুন

গুরুদাসপুরে চোলাই মদসহ দুই জন আটক

নিজস্ব প্রতিবেদক: নাটোরের গুরুদাসপুরে চোলাই মদসহ রাজেন্দ্র পাহান (৬০) ও সুরেশ পাহান(৫০) নামের দুই জনকে …

Leave a Reply

Your email address will not be published.