শুক্রবার , ফেব্রুয়ারি ৩ ২০২৩
নীড় পাতা / আইন-আদালত / কনের আসনে বসে পড়লেন ভাবি!

কনের আসনে বসে পড়লেন ভাবি!

নিজস্ব প্রতিবেদক, গুরুদাসপুর: বাল্য বিয়ে বন্ধ করতে কনের বাড়িতে নাটোরের গুরুদাসপুরের ভারপ্রাপ্ত উপজেলা নির্বাহী অফিসার নাহিদ হাসান খান। তাকে দেখেই কনের বদলে বিয়ের পিঁড়িতে বসে পড়লেন কনের ভাবি।  শুক্রবার সকালে এমনই ঘটনা ঘটে গুরুদাসপুর উপজেলার যোগেন্দ্রনগর গ্রামে।

ইমাম দিলেন ভোঁ দৌড়।  কনের আসনে কনের ভাবিকে রেখে শুরু হয় নাটকীয় অভিনয়।  কিন্তু কিছুক্ষণ পরেই ধরা পড়ে যায় কনের বাড়ির লোকজনের নাটকীয়তা। কনের ভাবিকে ও তার ভাইকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য আটক করে নিয়ে আসা হয় উপজেলায়।  পরে বাল্যবিয়ের আয়োজন করায় কনের ভাইকে পাঁচ হাজার টাকা জরিমানা ও ১৮ বছর না হওয়া পর্যন্ত বিয়ে দেবে না মর্মে মুচলেকা নিয়ে তাদেকে ছাড়া হয়।

শুক্রবার দুপুরে উপজেলার বিয়াঘাট ইউনিয়নের যোগেন্দ্রনগর গ্রামে দশম শ্রেণিতে পড়ুয়া ১৬ বছরের এক ছাত্রীর বাল্যবিয়ে দেয়া হচ্ছে।  এমন খবর জানিয়ে ফোন করা হয় উপজেলা নির্বাহী অফিসার তমাল হোসেনের কাছে।  এই খবরে ভারপ্রাপ্ত উপজেলা নির্বাহী অফিসার নাহিদ হাসান খান ওই বাল্যবিয়ের অনুষ্ঠানে গিয়ে কনেকে না পেয়ে কনে সেজে বসে থাকা কনের ভাবি ও তার ভাইকে আটক করে নিয়ে আসে।

আরও দেখুন

বনপাড়া ল্যাবরেটরী স্কুলে বার্ষিক ক্রীড়া প্রতিযোগিতা

নিজস্ব প্রতিবেদক: নাটোরের বড়াইগ্রামের বনপাড়া ল্যাবরেটরী স্কুলে শুক্রবার বার্ষিক ক্রীড়া প্রতিযোগিতা ও পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠিত …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *