শনিবার , অক্টোবর ১ ২০২২
নীড় পাতা / আইন-আদালত / ঈশ্বরদীতে শিক্ষকের বিরুদ্ধে মানববন্ধন ও বিক্ষোভ

ঈশ্বরদীতে শিক্ষকের বিরুদ্ধে মানববন্ধন ও বিক্ষোভ

নিজস্ব প্রতিবেদক, ঈশ্বরদী
একাধিক ছাত্রীদের সঙ্গে অশ্লীল আচরণের অভিযোগে ঈশ্বরদীর আওতাপাড়া আবু বকরিয়া সিনিয়র মাদ্রাসা (এবি মাদ্রাসা) শিক্ষক রবিউল ইসলামের বিরুদ্ধে মানববন্ধন ও বিক্ষোভ করেছেন শিক্ষার্থী, অভিভাবক ও এলাকাবাসী।
সোমবার (১৬ সেপ্টেম্বর) মাদ্রাসার সামনের সড়ক (পাকশী-পাবনা বগামিয়া সড়ক) অবরোধ করে মানববন্ধন শেষে বিক্ষোভ করেন শিক্ষার্থীরা। এঘটনার পরপরই শিক্ষক রবিউল ইসলামকে সাময়িক বরখাস্ত করা হয়েছে।
মাদ্রাসা ছাত্রী আশা খাতুন বলেন, মাদ্রাসার সহকারী শিক্ষক রবিউল ইসলাম শ্রেণী কক্ষে এসে ছাত্রীদের শরীরের হাত দিয়ে শ্লীলতাহানী করে এবং অশ্লীল কথাবার্তা বলেন।একাধিকবার মাদ্রাসার সভাপতি ও অধ্যক্ষের নিকট ছাত্রীরা অভিযোগ দিলেও ওই শিক্ষকের বিরুদ্ধে কোন ব্যবস্থা গ্রহণ করেনি। দীর্ঘদিন ধরে তাঁর অশ্লীল আচরণে অতিষ্ঠ হয়ে আজ আমরা প্রতিবাদ জানাতে রাস্তায় নেমেছি।
রিয়া খাতুন বলেন, ওই শিক্ষকের অন্যায় আচরণে আমরা অতিষ্ঠ হয়ে গেছি। স্যার শ্রেণী কক্ষে এসে চেয়ারে না বসে আমাদের বেঞ্চে বসেন। শরীরে হাত দেয়, একাধিক ছাত্রীকে বলে তোমাকে বউ বানাবো।
অভিভাবক রতন ফকির বলেন, মাদ্রাসায় মেয়েকে দিয়ে আমরা নিরাপত্তাহীনতায় রয়েছি। ছাত্রীদের গায়ে শিক্ষক রবিউল হাত দিয়ে শ্লীলতাহানী করে। এবিষয়ে মাদ্রাসার ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষের নিকট অভিযোগ দেয়া হলেও রবিউল প্রভাবশালী হওয়ায় তাঁর বিরুদ্ধে কোন ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়নি। তিনি আরো বলেন, রবিউল ইসলামের চাচাতো ভাই আসাদুজ্জামান রিপন বিশ্বাস ওই মাদ্রাসার পরিচালনা কমিটির সভাপতি হওয়ার কারণে তাঁর অন্যায়ের কেউ প্রতিবাদ করতে সাহস পায় না। অবশেষে এ বিষয়টি আমরা উপজেলা নির্বাহী অফিসার (ইউএনও) মহোদয়কে অবহিত করেছি।
মাদ্রাসার ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষ রোকনুর ইসলাম জানান, আমি ছাত্রীদের লিখিত অভিযোগ পেয়েছি। মাদ্রাসা পরিচালনা কমিটি ও শিক্ষকদের সঙ্গে বৈঠক করে অভিযুক্ত শিক্ষকের বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।
মাদ্রাসা পরিচালনা কমিটির সভাপতি আসাদুজ্জামান রিপন বিশ্বাস বলেন, ছাত্রী ও অভিভাবকদের অভিযোগের প্রেক্ষিতে তাৎক্ষনিক সিদ্ধান্ত নিয়ে শিক্ষক রবিউল ইসলামকে সাময়িক বরখাস্ত করা হয়েছে। এরপর বিষয়টি তদন্ত করে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।
মাদ্রাসা কমিটির প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি ও আজীবন দাতা সদস্য মতিয়ার রহমান সরদার শিক্ষকের অশ্লীলতাহানীর অভিযোগ প্রসঙ্গে বলেন, ওই শিক্ষকের সুষ্ঠু বিচার হতে হবে। এধরনের শিক্ষকের কারণে মাদ্রাসার সুনাম নষ্ট হচ্ছে।

আরও দেখুন

নন্দীগ্রামের ৪৬টি মন্ডপে চলছে দুর্গাপূজার শেষ সময়ের প্রস্তুতি

নিজস্ব প্রতিবেদক, নন্দীগ্রাম:বগুড়ার নন্দীগ্রামে ৪৬টি মন্ডপে চলছে দুর্গাপূজার শেষ সময়ের প্রস্তুতি। এ বছর দেবীদুর্গা হাতির …

Leave a Reply

Your email address will not be published.