শনিবার , ডিসেম্বর ১০ ২০২২
নীড় পাতা / জাতীয় / মুজিববর্ষ উদযাপনের কাউন্টডাউন উদ্বোধন করলেন প্রধানমন্ত্রী

মুজিববর্ষ উদযাপনের কাউন্টডাউন উদ্বোধন করলেন প্রধানমন্ত্রী

উদ্বোধনের সাথে সাথে দেশের প্রতিটি জেলা, উপজেলা এবং বিভিন্ন জনসমাগম স্থলে একযোগে গণনা শুরু হয়

জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবর্ষ উদযাপনের কাউন্টডাউন (ক্ষণগণনা) বর্ণাঢ্য এক উদ্বোধনী অনুষ্ঠানের মধ্য দিয়ে শুরু হয়েছে। শুক্রবার (১০ জানুয়ারি) প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা জাতীয় প্যারেড স্কয়ারে লোগো উন্মোচন করে দেশব্যাপী ক্ষণগণনার আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করেন। উদ্বোধনের সাথে সাথে দেশের প্রতিটি জেলা, উপজেলা এবং বিভিন্ন জনসমাগম স্থলে একযোগে গণনা শুরু হয়।

ক্ষণগণনার ঘড়ি বিভিন্ন সিটি করপোরেশন, জেলা শহর, বিভাগীয় শহর এবং উপজেলায় বসানো হয়েছে।

১২টি সিটি করপোরেশনের ২৮টি স্থানে এবং বিভাগীয় শহর, ৫৩ জেলা, দুই উপজেলা ও ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়সহ ঢাকা শহরে ৮৩টি ক্ষণগণনার ঘড়ি বসানো হয়েছে। বিভিন্ন মন্ত্রণালয়, বিভাগ, অধিদপ্তর, সামাজিক-সাংস্কৃতিক সংগঠন এবং সরকারি ও বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয় তাদের নিজস্ব উদ্যোগে ঘড়ি স্থাপন করছে।

বঙ্গবন্ধুর জন্মশতবর্ষ উদযাপনের মাধ্যমে সরকার জনগণ, বিশেষত নতুন প্রজন্মের সামনে বঙ্গবন্ধুর জীবন ও কর্মকে তুলে ধরার লক্ষ্য নিয়েছে।

এছাড়াও ১০ জানুয়ারি বঙ্গবন্ধুর ঐতিহাসিক স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবস উপলক্ষে তেজগাঁও পুরাতন বিমানবন্দরে (বর্তমান নাম জাতীয় প্যারেড স্কয়ার) ৪টা ৩৫ মিনিটে সি-১৩০জে প্রতীকী বিমান অবতরণ করে। বাংলাদেশের স্বাধীনতার পর ১৯৭২ সালের ১০ জানুয়ারি বঙ্গবন্ধু স্বদেশে প্রত্যাবর্তন করে ওই স্থানেই বিমান থেকে অবতরণ করেছিলেন।

বিমান অবতরণের পর ১৯৭২ সালের এই দিনে বাজানো সন্ধ্যা মুখোপাধ্যায়ের বিখ্যাত গান ‘বঙ্গবন্ধু তুমি ফিরে এলে’ বাজানো হয়। প্রধানমন্ত্রীর সাথে জাতীয় প্যারেড স্কয়ারে উপস্থিত ছিলেন বঙ্গবন্ধুর ছোট মেয়ে শেখ রেহানা ও নাতি সজীব ওয়াজেদ জয়। আগামী ১৭ মার্চ মুজিববর্ষ উদযাপনের উদ্বোধন করা হবে। যেখানে দেশি ও বিদেশি বরেণ্য ব্যক্তিরা অংশ নেবেন।

আরও দেখুন

কোনো অপপ্রচার গুজবে কান দেবেন না

নিউজ ডেস্ক: প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বিশ্বমন্দার প্রভাব কাটিয়ে উঠতে বিলাসিতা না করার জন্য দেশবাসীর প্রতি …