নীড় পাতা / জাতীয় / পূর্ব ঘোষণা ছাড়াই পাবনা বিএনপির কমিটি বিলুপ্ত, নেতাদের ক্ষোভ

পূর্ব ঘোষণা ছাড়াই পাবনা বিএনপির কমিটি বিলুপ্ত, নেতাদের ক্ষোভ

নিউজ ডেস্ক: পূর্ব ঘোষণা ছাড়াই পাবনা জেলা বিএনপির নয়টি উপজেলা, নয়টি পৌরসভা, ৭৬টি ইউনিয়ন ও তিন শতাধিক ওয়ার্ড কমিটি বিলুপ্ত ঘোষণা করেছে দলটির হাইকমান্ড। কমিটি বিলুপ্তের কারণ হিসেবে বলা হয়েছে, সাংগঠনিক কাঠামো শক্তিশালী ও কার্যক্রম গতিশীল করতে এই সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে।

সূত্র বলছে, কমিটি বিলুপ্ত করার বিষয়ে ক্ষোভ না থাকলেও অজান্তে এমন সিদ্ধান্ত নেয়ার কারণ খুঁজছেন নেতারা। অনেকে বলছেন, পুরো বাংলাদেশের তৃণমূল বিএনপির কমিটিগুলোকে একটি সিন্ডিকেট থেকে নিয়ন্ত্রণ করার লক্ষ্যেই বিভাগ, জেলা, উপজেলা ও ওয়ার্ড কমিটি বাতিল করা হচ্ছে। একটি পক্ষ পুরো দেশের দলীয় কার্যক্রমকে নিজেদের হাতের মুঠোয় আনার লক্ষ্যে এমন কাজ করছে। তাদের এই অবৈধ ও অগ্রহণযোগ্য সিন্ডিকেট ভেঙ্গে দেয়ার অংশ হিসেবেই হাইকমান্ড পাবনা জেলার বিভিন্ন পর্যায়ের কমিটিগুলো ভেঙ্গে দিয়েছে।

জানা গেছে, শনিবার (২১ সেপ্টেম্বর) পাবনা জেলা বিএনপির আহ্বায়ক কমিটির আহ্বায়ক হাবিবুর রহমান হাবিব ও সদস্য সচিব সিদ্দিকুর রহমান স্বাক্ষরিত এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে কমিটি ভেঙ্গে দেয়ার বিষয়ে হাইকমান্ডের এমন নির্দেশনার বিষয়ে জানা যায়।
অভিযোগের বিষয়টি পাশ কাটিয়ে পাবনা জেলা বিএনপির আহ্বায়ক কমিটির সদস্য সচিব সিদ্দিকুর রহমান বলেন, জেলা বিএনপির সদ্য ঘোষিত আহ্বায়ক কমিটি জেলার বিএনপি নেতাকর্মীদের নিয়ে একটি যুগোপযোগী কমিটি করার লক্ষ্যে এই সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে। এটি সরাসরি তারেক রহমানের সিদ্ধান্ত মাফিক গৃহীত হয়েছে। আগে আমাদের মধ্যে নানা কারণে মতভেদ থাকলেও বর্তমানে সব বিভেদ ভুলে এক সঙ্গে কাজ করার জন্যে সবাই অঙ্গীকারাবদ্ধ। এখন যারা এ নিয়ে মতভেদ ছড়াচ্ছেন তারা আসলে দলের ভালো চায় না।

এদিকে নাম প্রকাশ না করার শর্তে পাবনা জেলা বিএনপির একজন নেতা বলেন, দেশের বিভিন্ন অঞ্চলের মতো পাবনাতেও সিন্ডিকেট নির্ভর রাজনীতি চলছে। সাংগঠনিক কাঠামো শক্তিশালী ও কার্যক্রম গতিশীল করতে এই সিদ্ধান্ত নেয়া হলেও আমার কাছে বিষয়টি চক্রান্তের মতো মনে হচ্ছে। কেননা, গুটিকতক নেতারা ছাড়া কমিটি বিলুপ্তের বিষয়ে কেউই জানেন না।

আরও দেখুন

দেশের চেয়ে কম দামে বিদ্যুৎ দিচ্ছে নেপাল

নিউজ ডেস্ক. সব জটিলতা কাটিয়ে নেপাল থেকে বিদ্যুৎ আমদানির পথে আরেক ধাপ এগোল বাংলাদেশ। গতকাল …