নীড় পাতা / আইন-আদালত / পুঠিয়ায় প্রতিবন্ধী স্কুলছাত্রী ধর্ষণের আসামী গ্রেফতার

পুঠিয়ায় প্রতিবন্ধী স্কুলছাত্রী ধর্ষণের আসামী গ্রেফতার

নিজস্ব প্রতিবেদক, পুঠিয়া:
রাজশাহীর পুঠিয়ায় প্রতিবন্ধী স্কুলছাত্রী ধর্ষণের আসামীদের র‌্যাব-৫ ও র‌্যাব-১১ যৌথ অভিযান চালিয়ে গ্রেফতার করেছে। সোমবার (১৮ এপ্রিল) গভীর রাতে নারায়ণগঞ্জ জেলার সদর থানাধীন খানপুর নামক স্থান থেকে তাদের গ্রেফতার করা হয়। গ্রেফতারকৃতরা হলেন, উপজেলার শিলমাড়ীয়া ইউনিয়নের কার্তিকপাড়া গ্রামের নমীর উদ্দিনের ছেলে রাকিব (২৫) ও একই থানাধীন কাজুপাড়া গ্রামের মৃত আবু সাইদের ছেলে মিজান (৩০)।মঙ্গলবার রাত ১০ টার দিকে র‌্যাব-৫, এর পাঠানো এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য নিশ্চিত করা হয়।

র‌্যাব জানায়, রাজশাহীর পুঠিয়া উপজেলার কাচুপাড়া মাঠের মধ্যে এক পথচারি প্রতিবন্ধী স্কুলছাত্রী ধর্ষণের শিকার হয়। এ সময় ধর্ষণকারিরা তার মোবাইল ফোন ও টাকা ছিনিয়ে নেয়। গত বুধবার (১৩ এপ্রিল) রাত ৮টার দিকে উপজেলার কাচুপাড়া মাঠের মধ্যে এ ঘটনা ঘটে। পরে স্থানীয় লোকজন তাকে উদ্ধার করে পুঠিয়া থানায় নিয়ে যায়। ধর্ষণের শিকার ওই ছাত্রীর বাড়ি রাজশাহীর বাগমারা উপজেলার তাহেরপুর পৌরসভার কোয়ালিপাড়া গ্রামে। তিনি জামগ্রাম টেকনিক্যাল স্কুল এন্ড কলেজের দশম শ্রেণীর ছাত্রী। তার এক পায়ে সমস্যা থাকায় খুড়িয়ে হাটেন।

স্থানীয় মাসুম হোসেন নামের এক ব্যক্তি জানান, মেয়েটি কাঁদতে কাঁদতে বেগার মোড়ে যায়। এ সময় স্থানীয় লোকজন বিষয়টি জানতে চাইলে তিনি ছিনতাই ও ধর্ষণের বিষয়টি জানায়।

ভিকটিম জানায়, সকালে কাচুপাড়ার এক আত্মীয়র বাড়ি বেড়াতে যায়। ইফতারের পর একটি ব্যাটারি চালিত রিকশা ভ্যান যোগে তিনি বাড়ি ফিরছিলেন। তার ভ্যানে আরও দুইজন ছিল। এ সময় কাচুপাড়া মাঠের মধ্যে ৫/৬ জন ধারলো অস্ত্র নিয়ে তাদের ভ্যানের গতি রোধ করে। এ সময় সবার কাছ থেকে টাকা ও মোবাইল ফোন ছিনিয়ে নেয়। এরপর অস্ত্রের মুখে সবাইকে তাড়িয়ে দিয়ে তাকে তুলে নিয়ে মাঠের মধ্যে একটি কলা বাগানে নিয়ে যায়। সেখানে তাকে ধর্ষণ করা হয়। পরে তারা তাকে সেখানে রেখে চলে গেলে একা বাজারে এসে লোকজন দেখে কান্না শুরু করে। পরে সেখান থেকে তাকে থানায় পাঠানোর ব্যবস্থা করা হয়।

উক্ত ঘটনার প্রেক্ষিতে অন্যান্য আইন শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর মত র‌্যাব ছায়া তদন্ত শুরু করে। এরপর ১৮ এপ্রিল র‌্যাব-৫, সিপিএসসি ও র‌্যাব-১১, সিপিসি-১ এর যৌথ অভিযানে গভীর রাতে নারায়ণগঞ্জ জেলার সদর থানাধীন খানপুর নামক স্থান থেকে ধর্ষণকারী আসামী রাকিব (২৫) ও মিজান (৩০)কে গ্রেফতার করে।

র‍্যাব সূত্রে জানা গেছে,  প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে উক্ত আসামীগণ ওই ঘটনায় সম্পৃক্ততার কথা স্বীকার করেছে। গ্রেফতারকৃত আসামীর বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা প্রক্রিয়াধীন।

আরও দেখুন

রাণীনগরে গত চার দিনেও ঝরে ক্ষতিগ্রস্থ্য ৭৮ পরিবারের পাশে দ্বাড়য়নি কেউ!

নিজস্ব প্রতিবেদক, রাণীনগর: নওগাঁর রাণীনগর উপজেলার পারইল ইউনিয়নের তিনটি গ্রামে ঝরে ক্ষতিগ্রস্থ্য ৭৮ পরিবারের পাশে এখনো …