বৃহস্পতিবার , ডিসেম্বর ৮ ২০২২
নীড় পাতা / উত্তরবঙ্গ / নন্দীগ্রামে খেংসর প্রাথমিক বিদ্যালয়ের দাতা সদস্য বোর্ড নামিয়ে ফেলায় ক্ষুদ্ধ অভিভাবকরা

নন্দীগ্রামে খেংসর প্রাথমিক বিদ্যালয়ের দাতা সদস্য বোর্ড নামিয়ে ফেলায় ক্ষুদ্ধ অভিভাবকরা

নিজস্ব প্রতিবেদক, নন্দীগ্রামঃ
বগুড়ার নন্দীগ্রামে খেংসর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের দাতা সদস্য বোর্ড নামিয়ে ফেলায় ক্ষুদ্ধ অভিভাবকরা। জানা গেছে, নন্দীগ্রাম উপজেলার ১নং বুড়ইল ইউনিয়নের খেংসর সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের জমিদাতা সদস্য আলহাজ্ব তমিজ উদ্দিন সরদার। এ ছাড়াও অন্যান্য দাতা সদস্য রয়েছে। তাদের নামে একটি দাতা সদস্য বোর্ড খেংসর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষককের কক্ষে লাগানো ছিল।

প্রধান শিক্ষক সেকেন্দার আলী গত ৫ই নভেম্বর ওই বোর্ড নামিয়ে ফেলে। এ ঘটনায় দাতা সদস্য পরিবার ও অভিভাবকরা ক্ষুদ্ধ হয়ে উঠে। গত ৬ই নভেম্বর সকাল সাড়ে ৯টায় দাতা সদস্য আলহাজ্ব তমিজ উদ্দিন সরদারের ছেলে ওসমান গণি সরদার খোকা, কামাল হোসেন সরদার, ফারুক হোসেন সরদারসহ অভিভাবকরা প্রধান শিক্ষক সেকেন্দার আলীকে দাতা সদস্য বোর্ড নামিয়ে ফেলে দেয়ার কারণ জানতে চাইলে তিনি ক্ষিপ্ত হয়ে উঠে। এক পর্যায়ে জমি দাতা আলহাজ্ব তমিজ উদ্দিন সরদারের অবদান অস্বীকার করে। এ নিয়ে উভয় পক্ষের মধ্যে কথা কাটাকাটির ঘটনা ঘটে। এ ঘটনা ভিন্ন খাতে প্রবাহের অপচেষ্টা চালানো হয়।

পরে উপজেলা নির্বাহী অফিসার শারমিন আখতার বিষয়টি আপস করে দেন। এ বিষয়ে কামাল হোসেন সরদার জানিয়েছে, এখানে প্রধান শিক্ষককে লাঞ্ছিত করার কোন ঘটনা ঘটেনি।

ফারুক হোসেন সরদার জানিয়েছে, আমার পিতা আলহাজ্ব তমিজ উদ্দিন সরদার খেংসর সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের জমি দাতা। সে সূত্রে আমিও দাতা সদস্য ছিলাম। আমার ভাই আলহাজ্ব শাহজাহান আলী সরদারও দাতা সদস্য ছিল। প্রধান শিক্ষক সেকেন্দার আলী আমাদের আর দাতা সদস্য হিসেবে গণ্য করছেন না। আমরা এর প্রতিকার চাই।

আরও দেখুন

নাটোরে বিএনপির বিক্ষোভ সমাবেশ

নিজস্ব প্রতিবেদক: বিএনপি নেতা কর্মিদের হত্যা ও গ্রেফতারের প্রতিবাদে এবং গ্রেফতারকৃতদের নিঃশর্ত মুক্তির দাবীতে নাটোরে …