বুধবার , জানুয়ারি ১৯ ২০২২
নীড় পাতা / জেলা জুড়ে / গুরুদাসপুর / গুরুদাসপুরে গরু ব্যবসায়ীকে মারপিট করে টাকা ছিনতাই !

গুরুদাসপুরে গরু ব্যবসায়ীকে মারপিট করে টাকা ছিনতাই !

নিজস্ব প্রতিবেদক, গুরুদাসপুরঃ
নাটোরের গুরুদাসপুরে শহিদুল ইসলাম নামে এক গরু ব্যবসায়ীকে মারপিট করে ৭ লক্ষ ১৩ হাজার টাকা ছিনতাইয়ের অভিযোগ উঠেছে। মঙ্গলবার (১৯ মে) দুপুরে উপজেলার বামনকোলা এলাকায় ওই ঘটনা ঘটে। আহত ব্যবসায়ীকে গুরুতর অবস্থায় গুরুদাসপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে। আহত ব্যবসায়ীর বাড়ি বামনকোলা মধ্যমপাড়া মহল্লায়। অভিযুক্ত ব্যক্তি জালাল উদ্দিন বামনকোলা উত্তরপাড়া মহল্লার শহিদুল ইসলামের ছেলে।

আহত ব্যবসায়ী শহিদুল ইসলাম জানান, বামনকোলা গ্রামের একটি খামার থেকে গরু ক্রয় করার জন্য তিনি ও তার ব্যবসায়ীর সহপাঠি কামরুল ব্যাপারীকে নিয়ে মশিন্দা জাকেরের মোড় নামক স্থানে এসে পৌছালে হঠাৎ করেই জালাল সহ তার সহপাঠিরা তাদের ওপর আক্রমন করে এবং বাঁশের লাঠি ও লোহার বাঠাম দিয়ে এলোপাতাড়ি পিটিয়ে জখম করে। এক পর্যায় আমার কাছে থাকা ৭ লক্ষ ১৩ হাজার টাকা ছিনিয়ে নেয় তারা।

এ বিষয়ে অভিযুক্ত জালাল উদ্দিন জানান, আমার বাবা শহিদুল ও কামরুলের কাছ থেকে একটি গরু ক্রয় করেছিলো। ওই গরুটি অসুস্থ ছিলো। তারা তার বাবাকে ঠকিয়েছে। পরে বিষয়টি মিমাংশা করবে বলে বার বার আশ্বাস দেয়। কিন্তু বিগত দুই মাস পার হলেও তাদের কোন দেখা পাওয়া যায়নি। গতকাল তার দাদি অসুস্থ হওয়ায় চিকিৎসা দিতে কাছিকাটা বাজারে যাওয়ার পথে মশিন্দা জাকেরের মোড় নামক স্থানে তাদের সাথে দেখা হয়। দেখা হওয়ার পর তাদেরকে পূর্বের বিষয়টি বলতেই তারা তার দিকে তেরে আসে। এক পর্যায় শহিদুলের সাথে হাতাহাতি হয় তার। তাকে কোন রকম লোহার বাটাম দিয়ে পিটানো হয়নি। যা ঘটনাস্থলের সবাই জানে। হাতাহাতির সময়ে ওই ব্যক্তি সিমেন্টের খুঁটির সঙ্গে লেগে মাথায় আঘাত পায়। এখন নাটক সাজিয়ে টাকা লুটের বিষয়টি সামনে আনছে বলে দাবি করেছেন জালাল উদ্দিন।

গুরুদাসপুর থানার অফিসার ইনচার্জ(ওসি) মোজাহারুল ইসলাম জানান, এ বিষয়ে এখন পর্যন্ত কোন অভিযোগ পাওয়া যায়নি। অভিযোগ পেলে তদন্তপূর্বক প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ গ্রহণ করা হবে।

আরও দেখুন

মিথ্যা বানোয়াট ও ভিত্তিহীন সংবাদ প্রকাশের বিরুদ্ধে তীব্র প্রতিবাদ

নিজস্ব প্রতিবেদক:লালপুরে মনিহারপুর-রামকৃষ্ণপুর উচ্চ বিদ্যালয়ে দীর্ঘদিন যাবৎ শিক্ষক-কর্মচারীর সিংহভাগ অনুপস্থিত, স্থানীয়দের ক্ষোভ এই শিরোনামে ১৬ …